Please wait...

বেফাকের কেন্দ্রীয় পরীক্ষার মারকায প্রাপ্তির শর্তাবলী

তারিখে প্রকাশিত হয়েছে।
বেফাকের কেন্দ্রীয় পরীক্ষার মারকায প্রাপ্তির শর্তাবলী

বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ
পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ বিভাগ

১. মারকায আবেদনের জন্য বেফাকে ইলহাক হওয়ার পর কমপক্ষে ৩ বছর পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করা প্রাথমিক শর্ত।
২. পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বরাবরে মাদরাসার প্যাডে মুহতামিমের সীল ও স্বাক্ষর সহ বিস্তারিত লিখে আবেদন করতে হবে।
৩. সাবেক মারকায মাদরাসার প্যাডে সীল স্বাক্ষর সহ অনাপত্তিপত্র দাখিল করতে হবে এবং সাবেক মারকায ও র্পাশ্ববর্তী মারকাযের ক্ষতি না হয় এমন হতে হবে।
৪. মাদরাসা কমিটির মারকায আবেদন সম্বলিত রেজুলেশনের ফটোকপি আবেদনের সাথে জমা দিতে হবে।
৫. বেফাকের জেলা ও থানা কমিটির সভাপতির সত্যায়ণ থাকতে হবে। অন্যথায় বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদকের বিস্তারিত সত্যায়ণ থাকতে হবে।
৬. যাতায়াত ও যোগাযোগ ব্যবস্থা যথোপযোগী হওয়া এবং বেফাকের প্রকাশিত বই পড়ানো জরুরী।
৭. পরীক্ষার্থী সংখ্যা (পুরুষ) ঃ দরসিয়াতের জন্য ঢাকা মহানগরী ২২৫ জন, ঢাকা মফস্বল ও জেলা শহর ১৫০ জন এবং মফস্বল ১২৫ জন। (মহিলা) ঃ ঢাকা মহানগরী ১৫০ জন, ঢাকা মফস্বল ও জেলা শহর ১২৫ জন এবং মফস্বল ১০০ জন তাহফীযুল কুরআন ও ‘ইলমুত তাজবীদ ওয়াল ক্বিরাআত মারকাযের জন্য ৫০ জন করে পরীক্ষার্থী হতে হবে।
৮. আবেদনকারী মাদরাসার ছাত্র কমপক্ষে এক তৃতীয়াংশ হতে হবে।
৯. আবেদনকৃত মারকায এবং পার্শ্ববর্তী মারকাযের দূরত্ব কতটুকু তা স্পষ্টভাবে লিখতে হবে।
১০.সানাবিয়া উলইয়া মারহালার নিচের কোন মাদরাসায় এবং অনাবাসিক মাদরাসায় মারকায দেয়া হবে না।
১১. যে সকল মাদরাসা আবেদনকৃত মারকাযে পরীক্ষা দিবে তাদের মাদরাসার প্যাডে সীল স্বাক্ষরসহ সম্মতিপত্র জমা দিতে হবে।

মারকায সমূহের পালনীয় কর্তব্য

১. পরীক্ষার্থীর সংখ্যা পরিমাণ প্রশস্ত পৃথক হল এবং প্রয়োজনীয় মানসম্মত (৬ফুট) তেপায়া থাকতে হবে যাতে ৩ জন লিখতে পারে।।
২. বহিরাগত পরীক্ষার্থী, ওস্তাদ ও অভিভাবকদের থাকা খাওয়া এবং হলের নিকটবর্তী প্র¯্রাব-পায়খানার সুব্যবস্থা থাকতে হবে।
৩. নেগরানের জন্য পৃথক কামরা, পৃথক আলমারী এবং খাদেমের ব্যবস্থা থাকতে হবে। ঐ রুমে অন্য কেউ থাকতে পারবে না।
৪. মারকাযের সামগ্রিক শৃঙ্খলা বিধানের লক্ষ্যে প্রতি মারকাযে একটি মারকায কমিটি গঠন করতে হবে।
৫. সকল বিধিমালা বাস্তবায়নের নিশ্চয়তা জ্ঞাপন করে মারকাযওয়ালা মাদরাসার মুহতামিম একটি অঙ্গীকার পত্র দিতে হবে।
৬. বিগত ৭/৮/১৮ঈ: তারিখের ইমতিহান কমিটির বৈঠকের সিদ্ধান্ত মুতাবিক দরসিয়াত মারকায (পুরুষ-মহিলা) মঞ্জুরীর ফি, ঢাকা মহানগর ২৪০০০/- ঢাকা মফস্বল ও জেলা শহর ১৫,০০০/- এবং মফস্বল এলাকায় ৯,০০০/- এক কালিন প্রদান করতে হবে। তাহফীযুল কুরআন ও ইলমুল তাজবীদ ওয়াল ক্বিরাআত মারকায মঞ্জুরীর ফি সকল ক্ষেত্রে ৯,০০০/- এক কালিন প্রদান করতে হবে।
৭. মহিলা মারকায আবেদনের ক্ষেত্রে ১ জন পুরুষ এবং ২/৩/৪ জন (অবস্থাভেদে) মহিলা নেগরানের নামের তালিকা নিবন্ধন ফরমের সাথেই জমা দেয়া আবশ্যক।
৮. মাদরাসার নামে এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন সেট থাকতে হবে।
৯. ই-মেইল, অনলাইন, হোয়াটসঅ্যাপ, টেলিগ্রাম ইত্যাদির ব্যবস্থাপনা এবং পরিচালনার জন্য পারদর্শী লোক থাকতে হবে।
১০. কম্পিউটার, এক বা একাধিক ফটোকপি মেশিন এবং প্রিন্টার থাকতে হবে।
১১. বিদ্যুৎব্যবস্থা / জেনারেটর / আই.পি.এস. এর ব্যবস্থা থাকতে হবে।
১২. মারকায মাদরাসার মুহতামিম পরীক্ষা চলাকালিন সময়ে প্রতিদিন মাদরাসায় উপস্থিত থাকতে হবে।

(মুফতী আবূ ইউসুফ)
পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক

বাংলা